শীতে কুকুরের যত্ন

বেশিরভাগ মানুষই পোষা কুকুরকে বাইরের বাগানে অথবা ছাদে খোলা স্থানে পালন করে থাকেন। আমাদের দেশি কুকুরের লোম কম থাকায় শীতকালে এদের উষ্ণতার বিশেষ প্রয়োজন হয়। এসব ঠাণ্ডা স্থানে যাতে আপনার প্রিয় প্রাণীটি কষ্ট না পায় সে দিকে বিশেষ ভাবে খেয়াল রাখতে হবে। আর তাই শীতকালে তাদের কিছু বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয়।

১। শীত সহ্য করার ক্ষমতাঃ
আপনাকে প্রথমেই বুঝতে হবে আপনার কুকুরটি কোন জাতের(Breed)। কিছু কুকুর আছে যাদের শরীরে লোম থাকে যা ঠাণ্ডা আবহাওয়ার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য উপযোগী। কিছু জাতের কুকুরের একেবারেই লোম কম থাকে, তাদের ঠাণ্ডা পরিবেশে বেঁচে থাকতে কষ্ট হয়। সুতরাং তাদের জন্য আলাদা যত্নের দরকার হয়।

২। আরামদায়ক বিছানা ও গরম জামার ব্যবস্থা করতে হবেঃ

Winter-care-for-dog2উষ্ণ, ঠাণ্ডা কম লাগে এমন একটি জায়গায় কুকুরের জন্য বিছানা পেতে দিতে হবে। মেঝেতে খালি জায়গায় অথবা Tiles এ বসতে দেওয়া যাবে না। মাঝে মাঝে বেশি ঠাণ্ডায় কুকুরকে জামা অথবা সোয়েটার পড়িয়ে দিতে হবে। কুকুরটি বাইরে থাকলে তার জন্য আলাদাভাবে থাকার জন্য ছোট ঘর বানিয়ে দিতে হবে যাতে ঠাণ্ডায় তার কষ্ট না হয়।

৩। কুকুরকে বেশি খাওয়ানো যাবে নাঃ
শীতকালে কুকুরের উষ্ণতা প্রয়োজন কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে তা যেন কুকুরের লোম থেকে আসে, তার শরীরের চর্বি (Fat) থেকে নয়। শীতকাল এমনিতেই কুকুরের মধ্যে অলসতা দেখা দেয়, কর্মক্ষমতা হ্রাস পায় ফলে তারা শরীরে কম ক্যালরির প্রয়োজন হয়। তাই এমন খাবার অথবা dog food খাওয়াতে হবে যাতে তার শরীরে চর্বি কম জমে ,তার শরীরে পরিমিত লোম গজায় এবং ভালো Energy পায়।

৪। পরিমিত পানি পান করাতে হবেঃ
গরমকালের মত শীতকালেও কুকুরের দেহ খুব দ্রুত পানিশূন্য হয়ে যায়। তাই তাকে সব সময় পরিমিত পানি সরবরাহ করতে হবে।

৫। পোড়া থেকে রক্ষা করতে হবেঃ
অনেক সময় উষ্ণস্থান খোঁজার জন্য কুকুর আগুনের আসেপাশে, গরম ইঞ্জিন এর উপর ঘুমাতে চায়, এতে দুর্ঘটনাবশত বেশি তাপ লেগে কুকুরের শরীর পুরে যেতে পারে। তাই তাকে সাবধানে আগুন থেকে দূরে রাখতে হবে।

৬। কুকুরের যত্ন নিতে হবেঃ
শীতকালে কুকুরকে মাঝে মাঝে হালকা গরম পানিতে গোসল করিয়ে ভালভাবে গা মুছে শুকিয়ে ফেলতে হবে। এছাড়া পায়ের বিশেষ যত্ন নিতে হবে। মাঝে মাঝে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে , কুকুরের জন্য বিশেষভাবে তৈরি বিভিন্ন ধরনের ointment পাওয়া যায়, তা লাগিয়ে দিতে হবে, এতে করে পা ফাটার সম্ভাবনা কমে যাবে।

৭। প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ও টিকা দিতে হবেঃ
শীতকাল আসার আগেই কুকুরকে রোগ প্রতিরোধ করার জন্য টিকা দিতে হবে। এছাড়া জ্বর, কাশি হলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নিকটস্থ vet এর কাছে নিয়ে যেতে হবে।